সিলেটে পুলিশ পরিচয়ে যুবককে তুলে নেয়ার সময় আটক ২

পল্লী টিভি

নিজস্ব প্রতিবেদক:

সিলেটের বিশ্বনাথে পুলিশ পরিচয়ে যুবককে তুলে নেয়ার সময় দুইজনকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে সাধারণ জনতা। গতকাল শুক্রবার (২৩ এপ্রিল) রাত সাড়ে ১১টায় উপজেলার দৌলতপুর ইউনিয়নের পুরাতন হাবড়া বাজার এলাকায় এঘটনা ঘটে।

আটককৃতরা হলেন- কালিগঞ্জ বাজার এলাকার গোবিন্দপুর গ্রামের মাশুক মিয়ার ছেলে মারুফ মিয়া (২৮) ও একই গ্রামের আশিক মিয়ার ছেলে আফজাল মিয়া (৩০)। আজ শনিবার সকালে অপহরণ মামলা দিয়ে তাদের সিলেট আদালতে প্রেরণ করেছে পুলিশ।

স্থানীয় সূত্র জানায়, দশপাইকা গ্রামের রিপন আলী শুক্রবার রাতে পার্শ্ববর্তী বাড়ি থেকে নিজ বাড়ি ফিরছিলেন। পথিমধ্যে তাকে মারধর শুরু করেন তার প্রতিবেশী আবদুল মতিনগং। এক পর্যায়ে মারুফ ও আফজাল নিজেদের পুলিশ পরিচয় দিয়ে তাকে জোরপূর্বক হাত-মুখ বেঁধে গাড়িতে উঠিয়ে নেন। পরে গাড়িটি স্থানীয় হাবড়া বাজারে পৌঁছালে রিপনের বুদ্ধিমত্তায় তাকে উদ্ধার ও ওই দুই যুবককে আটক করেন উপস্থিত জনতা। পরে তাদের পুলিশে হস্তান্তর করা হয়। এ ঘটনায় রিপন মিয়া বাদী হয়ে অপহরণ মামলা দেন।

আটক হওয়া মারুফ মিয়া জানান, রিপনের প্রতিবেশি আবদুল মতিন তার ভগ্নিপতি। কিছুদিন পূর্বে বোনের ঘর চুরি হয়। খোয়া যায় তিন ভরি স্বর্ণ। এ ঘটনায় রিপনের চালচলনে তাকেই সন্দেহ করেন সবাই। বিষয়টি আবদুল মতিনরা নিশ্চিতও হন জনৈক তান্ত্রিক মহিলার মাধ্যমে। ঘটনার দিন ইফতারি নিয়ে বোনের বাড়ি গিয়েছিলেন মারুফ ও আফজাল। পরে চুরির ঘটনাকে কেন্দ্র করে, স্বর্ণ উদ্ধারের জন্যে ভগ্নিপতি মতিনের পরিকল্পনায় রিপনকে অপহরণের চেষ্টা করেন তারা।

এ বিষয়ে কথা হলে বিশ্বনাথ পুলিশ স্টেশনের অফিসার ইন-চার্জ শামীম মুসা বলেন, ইতমধ্যেই অপহরণ মামলা নিয়ে আটককৃতদের সিলেট আদালতে প্রেরণ করা হয়েছে।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ