সাঁতারে তৃতীয় দিনে আরো চারটি জাতীয় রেকর্ড

একটা গেমসে অ্যাথলেটিকস, সাঁতার, শ্যুটিং, ফুটবলের প্রতি বাড়তি আকর্ষণ থাকে। নবম বাংলাদেশ গেমসের এই খেলাগুলো এখন শেষের পথে। অ্যাথলেটিকস আগের দিন শেষ হয়ে গেছে। আকর্ষণীয় ডিসিপ্লিন সাঁতারে রেকর্ডের দিন গেছে কাল। মিরপুরে সৈয়দ নজরুল ইসলাম জাতীয় সুইমিংপুলে গতকাল তৃতীয় দিনে আরো চারটি জাতীয় রেকর্ড হয়েছে। পুরুষদের ২০০ মিটার বাটারফ্লাই ইভেন্টে নৌবাহিনীর কাজল মিয়া শ্রেষ্ঠত্ব দেখিয়েছেন। কাজল মিয়া ২ মিনিট ১০.৯২ সেকেন্ড সময় নিয়ে রেকর্ড গড়েন এবং সেনাবাহিনীর জুয়েল আহমেদের ২০১৯ সালে গড়া রেকর্ড ভাঙেন তিনি। একই ইভেন্টে জুয়েল আহমেদ নিজের পুরোনো রেকর্ড টাইমিং টপকে গেলেও তিনি ২ মিনিট ১১.১৭ সেকেন্ডে রৌপ্য জিতেছেন কুষ্টিয়ার আমলা থেকে উঠে আসা এই সাঁতারু।

৪০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে নিজের রেকর্ড নিজেই ভেঙেছেন সেনাবাহিনীর ফয়সাল আহমেদ। রেকর্ড গড়তে ফয়সাল সময় নেন ৪ মিনিট ১৮.২৩ সেকেন্ড।

৫০ মিটার ব্যাক স্ট্রোকে সেনাবাহিনীর সাঁতারু জুয়েল আহমেদ ২০১৯ সালে নিজের গড়া রেকর্ড ভেঙে গতকাল নতুন রেকর্ড গড়েছেন ২৭.৯৭ সেকেন্ড সময় নিয়ে। চার গুনতিক ১০০ মিটার ইভেন্টে নতুন জাতীয় রেকর্ড গড়েছেন নৌবাহিনীর আসিফ রেজা, মাহমুদুন্নবী নাহিদ, অনিক ইসলাম ও মাহফিজুর রহমান।

এছাড়াও ২০০ মিটার বাটার ফ্লাইয়ের পর গতকাল ৪০০ মিটার ফ্রিস্টাইলে দ্বিতীয় সোনা জিতেছেন নৌবাহিনীর সোনিয়া আক্তার টুম্পা। ৮০০ মিটার বাটারফ্লাই ও ৫০ মিটার ফ্রিস্টাইল ইভেন্ট নিয়ে তিন দিনে এটা ছিল ব্যক্তিগত লড়াইয়ে টুম্পার চতুর্থ স্বর্ণ পদক। টুম্পা ৫ মিনিট ৭.৮৯ সেকেন্ড সময় নিয়েছেন। সেনাবাহিনীর নাঈমা আক্তার ৫ মিনিট ১৯.৮৫ সেকেন্ড সময় নিয়ে রৌপ্য পদক পেয়েছেন। সেনাবাহিনীর আরেক সাঁতারু শারমিন সুলতানা ৫ মিনিট ২৭.০৯ সেকেন্ড সময় নিয়ে ব্রোঞ্জ পেয়েছেন।

পাঠকের মতামত

আরো খবর

ফেসবুকে আমরা

আমাদের অ্যান্ড্রয়েড অ্যাপ